অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের আয়োজনে শেখ ফজলুল হক মনি’র জন্মদিন উদযাপন

স্থানীয় সময় গত ৪ ডিসেম্বর (শুক্রবার) সিডনিস্থ লাকেম্বার পার্টি অফিসে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, মহান ৭১ এর বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুজিব বাহিনীর অধিনায়ক, লেখক-সম্পাদক ও স্বাধীনতা পরবর্তী যুবসমাজকে দেশের কাজে সংগঠিত করার রূপকার, কিংবদন্তি যুবনেতা শেখ ফজলুল হক মনি’র ৮১তম জন্মদিন পালন করা হয়।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ অস্ট্রেলিয়া শাখার আয়োজনে উক্ত অনুষ্ঠানে সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন ও শেখ মনির রাজনৈতিক আদর্শ ও সামাজিক জীবনের নানা অংশ নিয়ে আলোচনা করেন। সব শেষে স্লোগানে স্লোগানে উজ্জিবিত অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা কেক কেটে বাংলাদেশের যুবসমাজের আদর্শিক নেতা, দূর্ধর্ষ মুক্তিযোদ্ধা অধিনায়ক শেখ ফজলুল হক মনি’র ৮১ তম জন্মদিন উদযাপন করেন।

সিডনির ইঙ্গেলবার্নে ক্যাঙ্গারু প্রোপার্টি অস্ট্রেলিয়া’র যাত্রা শুরু

গত ১ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুরে বাংলাদেশি অধ্যুষিত ইঙ্গেলবার্নস্থ ৩১- ৩৩ অক্সফোর্ড রোডে বাংলাদেশিদের দ্বারা পরিচালিত ক্যাঙ্গারু প্রোপার্টি অস্ট্রেলিয়া তাদের নতুন কার্যালয়ের উদ্বোধন করে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সিটি কাউন্সিলের কমিশনার মাসুদ চৌধুরী ও স্থানীয় সামাজিক ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ক্যাঙ্গারু প্রোপার্টি অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে অতিথিদের স্বাগত জানান, সালমান আনোয়ার, নাইম এম সরদার, আমিন মোহাম্মদ, মোহাম্মেদ আয়মান ও জোসেফ কানয়েনগনি। স্থানীয় আবাসন বাজারে সর্বোচ্চ সেবা প্রদানে অঙ্গীকারবদ্ধ অভিজ্ঞ এই টিমটি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

অনুষ্ঠানের পর স্ন্যাকস ও কোমল পানীয় পরিবেশন করা হয়। 

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি ডাক্তারদের টেলি স্বাস্থ্য সেবা চালু

হেলথ অব লাভড ওয়ানস (হোলো) অস্ট্রেলিয়া থেকে বাংলাদেশে বিনা মূল্যে টেলিফোনে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছে।

পৃথিবীর অন্যতম শীর্ষ জনস্বাস্থ্য ব্যাবস্থাপনার ভিত্তিতে গড়ে উঠা অস্ট্রেলিয়ান হাসপাতাল, ক্লিনিক, ইমারজেন্সি ইউনিটের তিনজন মেধাবি বাংলাদেশি চিকিৎসকদের উদ্যোগে গঠিত অলাভজনক এই প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদ অতি সম্প্রতি সিডনিতে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ী ও অস্থায়ী ভাবে বসবাসরত যে কোন প্রাপ্তবয়স্ক বাংলাদেশী টেলিফোন, ইন্টারনেটের মাধ্যমে তাদের দেশে বসবাসরত প্রিয়জনদের স্বাস্থ্যবিষয়ক পরামর্শ নিতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম পরিচালক ডাঃ শেখ হায়দার তপু বলেন, সেবা নিতে আগ্রহী অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশীদের তাদের নাম ও বিস্তারিত যোগাযোগের  ঠিকানা আমাদের http://www.holonow.com.au ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিবন্ধন করতে হবে। তারপর রোগীর ফোন নম্বর সহ অনলাইনে তাদের পছন্দ মতো সময়ে বুকিং দিতে হবে।  আমাদের একজন চিকিৎসক নিদিষ্ট তারিখ ও সময়ে আবেদনকারী ও রোগীর সাথে টেলিফোনে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপত্র ও পরামর্শ প্রদান করবেন। প্রয়োজনে তারা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদেরও পরামর্শ নেবেন।

ডা: শেখ হায়দার তপু, ডা: ফয়যুর রেজা ইমন, ডা: ইফতেখার হোসেন পাভেল ও ডঃ মাহফুজ আশরাফ এর হেলথ অব লাভড ওয়ানস (হোলো) এই টেলিহেলথ সেবার সাথে যুক্ত আছেন আরও ডজনখানেক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। বিস্তারিত জানবার জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ডা: শেখ হায়দার তপু (Phone +61 433 380 497 & email: info@holonow.com.au

সিডনিতে মিঠুর নুতন মিউজিক ভিডিও ‘দূরে’

আজ ২৯ নভেম্বর (রবিবার) দুপুর ১টায় সিডনির ব্যাঙ্কস টাউনস্থ লেমনগ্রাস থাই রেস্টুরেন্টে সিডনি প্রবাসী কণ্ঠ শিল্পী মিঠু স্বপ্ন’র নুতন একক “দূরে” গানটির মিউজিক ভিডিও আনুষ্ঠানিকভাবে উম্মোচন করা হয়। সিডনি প্রবাসী কণ্ঠ শিল্পী সহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ কেক কেটে এই মিউজিক ভিডিওটি আনুষ্ঠানিকভাবে উম্মোচন করেন। মিঠু স্বপ্ন’র লেখা ও সুরে ‘দূরে’ গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন ফাহাদ আসমার।

তন্দ্রার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠান শুরুর পর বড় স্ক্রিনে “দূরে” গানটির মিউজিক ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। তারপর মিঠু স্বপ্ন সহ সিডনি প্রবাসী প্রখ্যাত কণ্ঠ শিল্পীরা গান পরিবেশন করে অতিথিদের সুরের মূর্ছনায় মাতিয়ে রাখেন।  

দেশের শীর্ষ অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এই একক গানটি প্রকাশ করেছে। মিঠু স্বপ্ন তার স্বাগত বক্তৃতায় উপস্থিত সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আবার নিয়মিত গান করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য নব্বই দশকের শেষদিকে ফাল্গুন মিউজিকের ব্যানারে মিঠু স্বপ্ন’র একক এ্যালবাম বাজারে আসে। সে সময় আধুনিক গানে তার দুটি গান টপ চার্টে স্থান পায়।

ভিকারুননিসা এলামনাই অস্ট্রেলিয়ার বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত

স্থানীয় সময় ১৪ই নভেম্বর (শনিবার) ভিকারুননিসা এলামনাই অস্ট্রেলিয়া ( ভি এ অস)’র ৩য় বার্ষিক সাধারন সভা সিডনীর ক্যাসুলার একটি ফাংশন সেন্টারে উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে কার্যকরী পরিষদের সদস্যবৃন্দ ছাড়াও সাধারন সদস্যারা উপস্থিত ছিলেন।

এলামনাই এসোসিয়েশনের বর্তমান সভাপতি ডঃ মাহবুবা খানম মুক্তার স্বাগত বক্তব্যের পর সাধারন সম্পাদক ডঃ সুরঞ্জনা জেনিফার রহমান বার্ষিক কার্যবিবরণী এবং কোষাধ্যক্ষ তাসরিনা নাহিদ তন্বী আর্থিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। 

অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়াতে বসবাসরত ভিকারুন্নেসা স্কুল এবং কলেজের প্রাক্তন  শিক্ষার্থীদের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। নতুন সদস্য হতে আগ্রহীদের  অনলাইনে বিস্তারিত জানতে www.vaaus.org ওয়েবসাইটে যোগাযোগ করতে অনুরধ জানানো হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা জানান, সামগ্রিক কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগামী বছর নারী দিবসকে সামনে রেখে একটি ফান্ড রেইজিং ইভেন্ট আয়োজন করা হবে৷ পাশাপাশি ২০২১ সালে সকল ভিকারুননিসা এলামনাই কে সাথে নিয়ে একটি “পূনর্মিলনী” আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়৷ ফান্ড রেইজিং ইভেন্ট ও পূনর্মিলনী সংক্রান্ত সকল তথ্য এসোসিয়েশনের ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে যথা সময়ে সবাইকে জানানো হবে বলে তারা জানান।

উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়। সংগঠনের পক্ষ থেকে পাবলিকেশন্স সেক্রেটারি (সাকিনা আক্তার) এই তথ্য জানান।

সিডনিতে রজত এর জানাজা ২৪ নভেম্বর

সিডনি প্রবাসী মোঃ মোমিনুর রহমান (রজত) এর নামাজে জানাজা আগামী ২৪ নভেম্বর ( মঙ্গলবার) সকাল ১১ টায়, ৬ রিচার্ডসন রোডস্থ নারেলেন কবরস্থানে অনুষ্ঠিত হবে। রজতের স্ত্রী ও বন্ধুরা নামাজে জানাজা ও দোয়ায় শরীক হয়ে মৃতের আত্মার মাগফেরাত কামনা করার জন্য কমিউনিটির সবার প্রতি বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ২১ নভেম্বর (শনিবার) ভোরে ইঙ্গেলবার্নস্থ নিজ বাসভবনে ঘুমন্ত অবস্থায় মোঃ মোমিনুর রহমান (রজত) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহে ও ইন্না ইলেইহে রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী তানজিনা জামান (মনি), এক মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন।

সিডনিতে বিডি কমিউনিটি হাব এর পথচলা শুরু

স্থানীয় সময় গত ২২ নভেম্বর (রবিবার) বিকেলে সিডনীর মিন্টোস্থ ২ এরিকা লেনের নিজস্ব ভবনে “বিডি কমিউনিটি হাব সিডনী” সংগঠনটির পক্ষ থেকে সার্বজনীন মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সংগঠনটির সভাপতি আবুল সরকারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল বারেক খান রতনের সঞ্চালনায় সিডনির রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক, সাংবাদিক ও বুদ্ধিজীবিরা এই মত বিনিময় সভায় অংশগ্রহন করে বিভিন্ন গঠনমুলক মতামত ও পরামর্শ প্রদান করেন। এই মত বিনিময় সভায় সংগঠনটির উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী ও পরামর্শ সাদরে গৃহীত হয়।

সংগঠনের সদস্যরা জানান, বৃহত্তর ক্যাম্বেলটাউন এলাকার এই বর্ধিস্নু কমিউনিটিতে আমাদের নিজস্ব কোন স্থান নেই, যেখানে আমরা মিলিত হতে পারি। খেতে পারি ফুসকা, চটপটি, আয়োজন করতে পারি সাহিত্য সভা, কবিতা বিকেল কিংবা নাটক। সবাই মিলে খেলা দেখবো একসাথে। তর্ক করবো, জিতবো, হারবো এক সাথে। পাশাপাশি পশ্চিমা জোয়ারের হাতছানি থেকে রক্ষা করবো আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে। প্রতিষ্ঠা করবো পাঠাগার। পারিবারিক কলহ রোধে আয়োজন করা হবে সেমিনারের। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিব একে অন্যের প্রতি। এই সব প্রত্যয় নিয়ে ”বিডি কমিউনিটি হাব সিডনী” নামে একটি নতুন সংগঠনের আত্নপ্রকাশ ঘটছে। 

সভায় বক্তারা নতুন সংগঠনের রূপরেখা, আদর্শ, উদ্দেশ্য ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে বিভিন্ন গঠনমুলক নির্দেশনা দেন। পাশাপাশি ব্যায়ামাগার, লাইব্রেরী, জাস্টিস অফ পিস সার্ভিস, বিভিন্ন ইনডোর খেলাধুলা, মহিলাদের জন্য পৃথক সভা কক্ষ, মত বিনিময় সভা ও সেমিনার সহ দেশ ও অস্ট্রেলিয়ার সব ধরনের জাতীয় দিবস উদযাপনের জন্য সিধান্তও গৃহীত হয়। তবে সংগঠনটির এই পথচলায় কিভাবে নুতন প্রজন্মকে সম্পৃক্ত করা যায় তার উপর বিশদ আলোচনা ও অগ্রাধিকার দেয়া হয়।

সংগঠনটির অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন, ফয়সাল আজাদ, সফিক শেখ, নীরব, সৈয়দ মিঠু, মোহাম্মদ লুতফর রহমান টিপু, শাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ।  “বিডি কমিউনিটি হাব সিডনী” সংগঠনটির আত্নপ্রকাশ এই প্রথমবারের মতো প্রবাসী বাংলাদেশীদের একটি নিজস্ব কমিউনিটি সেন্টারের দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে বলে বিজ্ঞ জনেরা মনে করছেন।

সিডনিতে দুর্ঘটনায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থী নিহত

আজ স্থানীয় সময় ২১ নভেম্বর (রবিবার) প্রবাসী বাংলাদেশী শিক্ষার্থী বিজয় পাল সিডনির কোগরাহস্থ ম্যাকডোনাল্ড সংলগ্ল জেব্রা ক্রসিং এ একটি ফোর হুইল ড্রাইভ গাড়ির সাথে মুখোমুখি দুর্ঘটনায় গুরুতরভাবে আহত হন। স্থানীয়রা জানান, ‘উবার ফুড’ চালক বিজয় পালকে দ্রুত সেন্ট জর্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা লাইফসাপোর্ট দেয়ার কিচ্ছুক্ষন পরেই তিনি মারা যান।

বিজয় পাল ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি সিডনিতে মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এবং বাংলাদেশের টাংগাইল জেলার বাসিন্দা। বিজয় পালের এক বোনও শিক্ষার্থী হিসেবে সিডনিতে থাকেন বলে একটি সুত্র জানিয়েছে। প্রয়োজনীয় ময়না তদন্তের পর মৃতের লাশ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন।

সিডনি প্রবাসী রজতের অকাল মৃত্যু

সিডনি প্রবাসী মোঃ মোমিনুর রহমান (রজত) আজ ২১ নভেম্বর (শনিবার) ভোরে ইঙ্গেলবার্নস্থ নিজ বাসভবনে ঘুমন্ত অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহে ও ইন্না ইলেইহে রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী তানজিনা জামান (মনি), এক মেয়ে (১২) ও এক ছেলে (৬) রেখে গেছেন। ভোর রাতে কাজ শেষে বাসায় ফিরে রজত ঘুমাতে যান। রজতের বন্ধু মাহমুদ হোসেইন ইমন জানান, সকালের দিকে তার স্ত্রী ছেলেকে নিয়ে বাইরে যাবার আগে ঘুমন্ত রজতকে বলতে এলে তিনি স্বামীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায় এবং পুলিশ ও এম্বুলেন্সে খবর দেন। সকাল ৯ টার দিকে তার মৃতদেহ মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঢাকা সিটি কলেজের ছাত্র রজত ২০০০ সালের অক্টোবর মাসে পার্থে আসেন। পরবর্তীতে ২০০১ সালে সিডনি এসে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। রজতের অকাল মৃত্যুতে সিডনি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বন্ধু বৎসল মরহুমের বন্ধু বান্ধব ও শুভাকাঙ্খারিরা হতবিহবল হয়ে পড়েছে। রজতের স্ত্রী ও বন্ধুরা তার আত্মার মাগফেরাতের জন্য দেশ ও প্রবাসের সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন। জানাজা ও দাফনের তারিখ পরে জানানো হবে।

অস্ট্রেলিয়ায় যুবলীগের ৪৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

স্থানীয় সময় গত ১৪ নভেম্বর (শনিবার) সন্ধ্যায় সিডনির বাঙালী পাড়াখ্যাত লাকেম্বায় বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়। নেতা কর্মীদের উপস্থিতিতে স্লোগান ও উদ্দীপনায় ভরে উঠে আয়োজনটি। এসময় অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সম্মানিত নেতৃবৃন্দসহ মিডিয়া ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন আলোকিত করে তোলেন।

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর সভাপতি মোঃ সেলিমের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারন সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নোমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী যুবলীলের সভাপতি মোস্তাক মেরাজ, যুগ্ন সম্পাদক অপু সারোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আসরাফ হিমেল, মহীউদ্দিন কাদির, মোহাম্মদ হাফিজসহ অন্যান্যরা। কেক কেটে ও জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে উদযাপিত হয় যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মনির আদর্শকে ধারন করে এবং শেখ মনির সুযোগ্য সন্তান কেন্দ্রীয় যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারন সম্পাদক মইনুল হোসেন নিখিলের নেতৃত্বের প্রতি আস্থা রেখে বক্তব্য রাখেন নেতা-কর্মীরা।

আরো বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান তরুন, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি ড: খায়রুল চৌধুরী, কেন্দ্রীয় ঢাকা দক্ষিন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুল হক শফিক, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এমদাদ হক, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মুনীর চৌধুরী, ট্রেজারার জমীর হোসেইন, অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ নেতা ইমরান হোসেইন, শাহ নেওয়াজ আলো, ড: সাইফুল ইসলাম। উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ হোসেইন, সৈয়দ আশীষ, সুফিয়ান মেনথন,  সাব্বির চৌধুরী, সালমিন সুলতানা, বিথী, ফাহাদ আসমার প্রমুখ। প্রানবন্ত আবৃত্তি করেন যুবলীগ নেতা আরিফুর রহমান।