প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে সিডনি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভাটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিসহ দেশ-বিদেশের সহযোগী-অঙ্গসংগঠন ও আওয়ামী মতাদর্শের বিভিন্ন সংগঠনের প্রাজ্ঞ নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সভাপতি গাউসুল আলম শাহাজাদার সভাপতিত্বে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদ সঞ্চালনা করেন। সঞ্চালনায় সহযোগিতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মেলবোর্নের সাধারণ সম্পাদক মোল্লা মো. রাশিদুল হক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির কোষাধ্যক্ষ মো. আব্দুস সালাম।

আলোচনা সভার শুরুতেই শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদ, তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে আমাদের একটাই চাওয়া, আল্লাহ যেন তাঁকে সুস্বাস্থ্যময় দীর্ঘায়ু দান করেন। কেননা বর্তমানে বাংলাদেশের নিরাপদ আশ্রয়স্থল একমাত্র শেখ হাসিনা। তিনি যতদিন দেশ পরিচালনায় থাকবেন ইনশাল্লাহ তত দিন কেউ আমাদের দাবায় রাখতে পারবে না।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন আমাদের কাছে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ, একবার চোখ বুজে চিন্তা করেন তাঁর যদি জন্ম না হতো এই যে ক্ষুধা-দারিদ্রের বাংলাদেশ, হত্যা-সন্ত্রাসের বাংলাদেশ, জঙ্গীবাদের বাংলাদেশ, সেই বাংলাদেশ কি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঘুরে দাঁড়াতে পারতো? এক কথায় উত্তর পারতো না। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন আমাদের নিকট খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যেমন বাংলাদেশ ও এদেশের মানুষকে বুকে ধারন করতেন, ঠিক সেইভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এদেশের মানুষকে ভালোবাসেন। আমরা গর্ব করতে পারি যে, এমন একজন প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। জন্মদিনে তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. সিরাজুল হক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ওপর বারবার হামলা হয়েছে, বিশেষ করে ২০০৪ সালে যে ন্যাক্কারজনক হামলা হয়েছে, তিনি আল্লাহর অশেষ রহমতে বেঁচে আছেন। তিনি আজকে আমাদের মাঝে আছেন বিধায় দেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে দৃঢ় সাহসিকতার সঙ্গে পদ্মাসেতু নির্মাণ করেছেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের সাথে সমঝোতাপূর্ণ পররাষ্ট্রনীতি চালিয়ে যাচ্ছেন। সম্প্রতি জাতিসংঘের মহাসচিব শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। এ সবই প্রধানমন্ত্রী বিচক্ষণতার পরিচয় বহন করে।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনির সভাপতি ড. রতন কুণ্ডু বলেন, সারাজীবন জাতির জনক ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার আদর্শ যেন বুকে পালন করতে পারি সেই প্রত্যাশাই করি। আলোচনা সভায় প্রত্যেক বক্তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং তাঁর সুস্বাস্থ্যময় দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মেলবোর্নের সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি মোল্লা মো. রাশিদুল হক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মেলবোর্নের সভাপতি ড. আলম মাহবুব, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ক্যানবেরার সভাপতি ড. শামীম আলম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম সরকার ও ড. তারিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদ হোসেন ও হাজী দেলোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সালাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সদস্য মেহেদী হাসান, বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি জাকারিয়া আল মামুন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি আমিনুল ইসলাম রুবেল প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. সিরাজুল হক।

ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী  নাদেল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও আইনজীবী সানজিদা খানম, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন অস্ট্রেলিয়ার সাংগঠনিক সম্পাদক মিতা চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ঢাকা উত্তর শাখার আইন সম্পাদক এ্যাডভোকেট যুগলুল কবির, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সভাপতি ইমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনির সভাপতি ড. রতন কুণ্ডু, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বেলজিয়ামের সভাপতি বজলুর রশীদ বুলু ও ক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সৌদি আরবের সভাপতি রেজাউল করিম মিলন।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান কচি ও মোহাম্মদ আলী শিকদার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সাংগঠনিক সম্পাদক দিদার হোসেন,  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন লাল্টু ও শাজাহান মিল্টন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন বেপারী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সাংগঠনিক সম্পাদক আইজিদ আরাফাত অরূপ  ও মো. মজনু, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সদস্য নাজমুল হক, দেওয়ান মুন্না প্রমুখ।