মুসলিম কমিউনিটির সম্মানে লিবারাল পার্টির ইফতার ও ডিনার পার্টি

গত ৭ মে (শুক্রবার)  মুসলমান কমিউনিটির সম্মানে স্থানীয় লিবারাল পার্টি এক ইফতার মাহফিল ও ডিনারের  আয়োজন করে। ল্যাকেম্বার একটি পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই সুবৃহৎ আয়োজনে মুসলিম কমিউনিটির গন্যমান্য সদস্য এবং লিবারাল পার্টির সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ও নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন The Hon. Cr Philip Ruddock (Mayor,Hornsby), ব্যবসায়ী ও লিবারেল পার্টির নেতা জিল্লুর রশিদ ভূঁইয়া, লিবারেল পার্টির নেতা ও ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম, মাইকেল হাওয়াত,দলের ল্যাকেম্বা ব্রাঞ্চ সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রানা, সদস্য এনামুল হক । পবিত্র রামাদানে স্থানীয় মুসলমানদের আপ্যায়নের পাশাপাশি উক্ত আয়োজনে দলের পক্ষ থেকে লিবারাল পার্টির নেতৃবৃন্দ স্থানীয় মুসলমানদের সাথে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে মতামত বিনিময় করেন। 

বিশ্ব শান্তি ও মহামারী  হতে মুক্তি এবং সমগ্র মুসলিম উম্মাহর নাজাত ও কমিউনিটির কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। দোয়া পরিচালনা করেন ড.ফকির মুনশী।

স্থানীয় লিবারাল নেতা  মুহাম্মদ রানার সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন লিবারেল পার্টির নিউ সাউথ ওয়েলসের সভাপতি ফিলিপ রাডক,সাবেক ইমিগ্রেশন মিনিস্টার ও বর্তমান মেয়র হর্ন্সবি শায়ার। সম্মানিত অতিথি তার  বক্তব্যে রামাদানের শুভেচ্ছা জ্ঞাপনের পাশাপাশি মুসলমান কমিউনিটিকে অগ্রিম ঈদের শুভেচ্ছা জানান। সেই সাথে তারা ঐক্যবদ্ধ কমিউনিটি গঠনে মুসলমানদের ভুমিকা ও সক্রিয় অংশগ্রহনের প্রশংসা করেন। লিবারাল পার্টির সাথে স্থানীয় মুসলমানদের নিবিড় সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের অংশগ্রহনে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে চলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। একই সাথে করোনা-অতিমারী মোকাবেলায় মুসলমানদের ভুমিকার ভুয়সী প্রশংসা করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে রাজনীতিবিদ, ডাক্তার, সাংবাদিক, মিডিয়াকর্মী, একাউন্ট্যান্ট ও আইনজীবী সহ স্থানীয় মুসলমান কমিউনিটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ কমিউনিটি অস্ট্রেলিয়ার একমাত্র সংবাদপত্র সুপ্রভাত সিডনীর চিফ এডিটর আবদুল্লাহ ইউসুফ শামীম ও সিডনি প্রেস ও মিডিয়া কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল মতিন উপস্থিত ছিলেন। ইফতার ও নামাজের পর উক্ত অনুষ্ঠানে রাতের খাবার পরিবেশন করা হয়। ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকার, কুশল বিনিময় ও ফটো সেসনের মধ্য দিয়ে উক্ত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশী সিনিয়র সিটিজেন অব অস্ট্রেলিয়ার সফল ইফতার মাহফিল

২৫ এপ্রিল (রোববার) সিডনির ল্যাকেম্বায় বাংলাদেশী সিনিয়র সিটিজেন অব অস্ট্রেলিয়ার (BSCA) ইফতার মাহফিল ও দো’য়া অনুষ্ঠিত হয়। রেস্তোরাঁর হলরুমে মেহমানদের আগমনে পুরো অনুষ্ঠানটি ছিল সুন্দর ও সফল। কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠনের নেতা কর্মী ছাড়াও অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তি বর্গের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো মুখরিত।

ড.মনিরুজ্জামানের দোয়া ও লিয়াকত আলীর সুমধুর আজানের সুরে কিছুক্ষণের জন্য সকলে স্থবির হয়ে যায়। প্রথমে ছিল, খেজুর, শরবত, রকমারি ভাজা -পোড়া ও বিভিন্ন ফলের সমারহ দিয়ে ইফতার। নামাজের পর শুরু হয় বাহারি কারির বাফে ডিনার। পর্যাপ্ত ও সুস্বাদু খাবারে উপস্থিত সকলে প্রশংসা করেন উদ্যেক্তাদের এ ধরনের বিশাল ও সুশৃঙ্খল আয়োজনের।

ইফতার মাহফিলের স্পন্সর করেন সিডনির বিশিষ্ট লিবারেল নেতা, খ্যাতমান ব্যবসায়ী ও বাংলাদেশী সিনিয়র সিটিজেন অব অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড মেম্বার জিল্লুর রশিদ ভূঁইয়া।তিনি তার সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্যে কম্যুনিটির সকলের সাথে মিলে মিশে কাজ করার ইচ্ছা পোষন করে বলেন, আমরা একসাথে কাজ করলে আগামীতে বিশাল পরিবর্তন সম্ভব।

দো’য়া ও ইফতার মাহফিলে দলমত নির্বিশেষে সকলের উপস্থিতি ছিল সকলের আনন্দের কারন। বিএনপি অস্ট্রেলিয়া, আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়া, লেবার পার্টি, লিবারেল পার্টি, শাপলা শালুক লায়ন্স ক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের চীফ কমান্ডার, বাংলাদেশী রিফিউজি অব অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ও সেক্রেটারি, বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি, ক্যানসার কাউন্সিলের নেতৃবৃন্দ, আইপিডিসি, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতা-কর্মীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিল সত্যি প্রশংসনীয়।

বাংলাদেশী সিনিয়োর সিটিজেন অব অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে আবারো সকলকে অনেক শুভেচ্ছা-অভিনন্দন ও কৃজ্ঞতা জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন এম এ ইউসুফ শামীম। প্রেস বিজ্ঞপ্তি