সিডনিতে ঈদুল ফিতর আগামী ১৩ ও ১৪ মে

চাঁদ দেখার সাপেক্ষে রোযার শুরু এবং শেষ নিয়ে ভিন্নতা থাকায় ‘অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইমাম কাউন্সিল’ আগামী ১৩ মে (বৃহস্পতিবার) ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতর উদযাপনের ঘোষণা দিয়েছে। অন্যদিকে সিডনিসহ অস্ট্রেলিয়ার কোন কোন এলাকায় বৃহস্পতিবার চাঁদ দেখা না যাওয়ায় ‘মুন সাইটিং অস্ট্রেলিয়া’র পক্ষ থেকে আগামী ১৪ মে (শুক্রবার) ঈদ পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিডনিতে সাধারণ কর্মদিবস থাকায় খুব সকাল থেকেই ঈদের জামাত শুরু হয়। ঈদের নামাজের জন্য স্থানীয় মসজিদ, ইসলামিক সেন্টার, কনভেনশন হল কিংবা পার্কে সমবেত হন প্রবাসী বাংলাদেশি মুসলমানরা। আবার কোথাও অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় একাধিক সময়ে নামাজের আয়োজন করা হয়। সিডনিতে ঈদের নামাজ কভিড বিধিনিষেধ অনুসরন করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

ঈদ উপলক্ষে কোন কোন মসজিদে বা কমিউনিটি হলগুলোতে খাবারের আয়োজন করা হয়। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য পৃথকভাবে নামাজের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে মসজিদগুলোতে। সিডনির ক্যাম্বেলটাউন এলাকার ম্যাকুরি রোড রিজার্ভে ১৩ ও ১৪ মে উভয়দিন সকাল সাড়ে সাতটায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

অস্ট্রেলিয়ার মুসলমানদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। এখানকার মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ উপলক্ষে সরকারি বা বেসরকারিভাবে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক ছুটি নেই। তবে অনেক প্রবাসীরাই ঈদের দিনটিতে আলাদা করে ছুটি নিয়েছেন। আবার অনেকেই ঈদের নামাজ আদায় করেই কর্মস্থলে যোগ দিবেন।