সিডনিতে বিকৃত স্মৃতিসৌধ নির্মাণের প্রতিবাদে সর্বদলীয় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

স্থানীয় সময় আজ ৬ মার্চ (শনিবার) বিকেল ৩ টায় লাকেম্বায় সর্বদলীয় ঐক্য পরিষদ সিডনির সদ্য নির্মিত বিকৃত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের প্রতিবাদে মানববন্ধনের আয়োজন করে।  

এর আগে গত ২১শে ফেব্রুয়ারি সিডনির বেলমোরের পিল পার্কে সমগ্র কমিউনিটির কাছে সম্পূর্ন গোপন রেখে বাংলাদেশি কমিউনিটি ও ক্যান্টারবেরি-ব্যাংকসটাউন কাউন্সিলের অর্থায়নে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধের নামে একটি বিকৃত স্মৃতিসৌধ উন্মোচন করা হয়। এই সময় বাংলাদেশের দুতাবাসের কনসাল জেনারেল, ক্যান্টারবেরি-ব্যাংকসটাউন কাউন্সিলের কতিপয় প্রশাসনিক কর্মকর্তা, স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটি ও তাদের কয়েকজন আস্থাভাজন উপস্থিত ছিলেন।

আজকের মানববন্ধনে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসি বাংলাদেশি লেখক ও সাংবাদিকদের বৃহত্তম সংগঠন সিডনি প্রেস এ্যান্ড মিডিয়া কাউন্সিল সহ বিভিন্ন মিডিয়া, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, মহিলা ও শিশু সহ দল ও মত নির্বিশেষে সর্বস্তরের প্রবাসীরা অংশগ্রহণ করেন।

মানব বন্ধনের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াতের পর সর্বস্তরের প্রবাসীরা সমবেত স্বরে জাতীয় সঙ্গীত ও একুশের গান গায়। এই সময় প্রতিবাদকারী কালো ব্যাজ পড়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বাংলার’ প্রতিফলন এবং কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে স্মৃতিসৌধের পুনঃ নির্মাণ করার দাবিতে বাংলাদেশের পতাকা ও বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করে।

নিন্দা ও প্রতিবাদ প্রতিবাদ মুখর মানব বন্ধনে স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটির উদ্দেশ্যে বক্তারা বলেন, দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বাংলার’ প্রতিফলন এবং কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে স্মৃতিসৌধের পুনঃ নির্মাণ করতে হবে। সেইসাথে বিকৃত স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটিকে এই হীন কাজের জন্য প্রবাসী সিডনি প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা সহ তাদের নিজস্ব অর্থায়নে পুনঃ নির্মাণ কাজ যথাশীঘ্র সম্পন্ন করার আহবান জানানো হয়।

মানব বন্ধনে বক্তারা দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেন, ব্যক্তিগত আক্রোশে সংযমহীন ভাষায় এবং অসংযত আচরণে কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করাকে প্রতিরোধ ও কমিউনিটিতে মিথ্যে তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করাকে প্রতিহত করা হবে। পাশাপাশি আমাদের দাবী পুরন না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলন ও কঠোর কর্মসূচী গ্রহন করা হবে।

মানব বন্ধনে আরও জানানো হয়, সর্ব দলীয় ঐক্য পরিষদের একটি প্রতিনিধি দল ইতিমধ্যে ক্যান্টারবেরি-ব্যাংকসটাউন কাউন্সিলের মেয়রের কাছে স্মৃতিসৌধের পুনঃ নির্মাণে তাদের পরামর্শ পেশ করে বৈঠক করেছেন। মেয়র তাদের দাবী পুরনের জন্য সর্বাত্মক সহযোগিতার অঙ্গীকার ব্যাক্ত করেছেন।

এর আগে গত ৪ মার্চ সন্ধ্যায় বিজ্ঞ কমিউনিটির অনুরোধে সমঝোতার লক্ষ্যে স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটির সাথে মিডিয়ার একটি প্রতিনিধিদলের জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ঐ বৈঠকে স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটি তাদের ভুল স্বীকার করে দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকে সাথে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা বাংলার’ প্রতিফলন এবং কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে স্মৃতিসৌধের পুনঃ নির্মাণ করতে সম্মত হয়। কিন্তু পরদিনই স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটির একজন সদস্য লাইভে এসে তাদের ভুল স্বীকার করার কথা অস্বীকার করলে মিডিয়া সহ সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।

উল্লেখ্য ল্যাকেম্বার পিল পার্কে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধ নির্মাণের অর্থ সংগ্রহের জন্য স্মৃতিসৌধ বাস্তবায়ন কমিটি গত ১৩ই অক্টোবর ২০১৯ সালে রকডেলের একটি ফাংশন সেন্টারে গালা ডিনারের আয়োজন করে। সেই অনুষ্ঠানে পার্থ প্রতিম বালার অঙ্কিত একটি নকশাটি প্রদর্শিত হয়। প্রস্তাবিত সেই নকশা থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি নকশা দিয়ে স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করলে সমগ্র কমিউনিটি বিক্ষোভ, হতাশা ক্ষোভ ও অসন্তোষে গর্জে ওঠে।

মানব বন্ধনে যোগদানকারী সংগঠনগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামীলীগ, অস্ট্রেলিয়া বিএনপি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ-অস্ট্রেলিয়া, জিয়া ফোরাম-অস্ট্রেলিয়া, বাসভূমি টেলিভিশন, স্বাধীন কণ্ঠ, বিজয় কন্ঠ, সিডনি প্রতিদিন, বিদেশবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকম, এবিসি বাংলা, সিক্সটি নাইন টেলিভিশন ও হক কথা প্রমুখ।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s