মরিসন-মোদি বৈঠক: অর্থনীতি, বাণিজ্য ও প্রতিরক্ষায় সহযোগিতার আশ্বাস

মোহাম্মদ আব্দুল মতিনঃ আজ ৪ জুন (বৃহস্পতিবার) অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বৈঠক শেষে মোদি বলেন, দু’দেশের অর্থনীতি, বাণিজ্য এবং প্রতিরক্ষা-সহ বেশি কিছু বিষয় উঠে এসেছে। ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে একটা দৃঢ় সম্পর্ক গড়ে উঠেছে এবং বিভিন্ন বিষয়ে দু’দেশের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা এই সম্পর্ককে আরও মজবুত করতে সহায়তা করেছে।

অন্য দিকে, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীও স্কট মরিসনও মোদীকে বিশ্বস্ত বন্ধু হিসেবে উল্লেখ করেছেন। শুধু তাই নয়, মোদীকে ‘প্রযুক্তির পথপ্রদর্শক’ হিসেবেও সম্বোধন করেছেন মরিসন। বৈঠক শেষে মরিসন বলেন, “এই কঠিন সময়ে ভারত একটা ইতিবাচক শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে। আমাদের সম্পর্ককে আরও অনেক দূর নিয়ে যেতে হবে। আরও মজবুত করতে হবে।” তিনি আরও বলেন, “প্রযুক্তির পথপ্রদর্শক ভারত। যা আজকের দিনে ভবিষ্যতের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটা দিক।” এই বৈঠকে দু’দেশের সমুদ্র বাণিজ্যও প্রসঙ্গও উঠে এসেছে। গত দেড় বছরে দুই রাষ্ট্রনায়কের মধ্যে চার বার সাক্ষাত্ হয়েছে। 

কয়েক দিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের উদ্দেশে টুইট করেছিলেন। সেখানে তিনি বলেছিলেন, ৪ জুন সাক্ষাতের অপেক্ষায় মুখিয়ে রয়েছি। এর আগে সশরীরে তাঁদের দু’জনের সাক্ষাত্ হয়েছিল, কিন্তু বিশ্বজুড়ে করোনা পরিস্থিতির জন্য এই প্রথম দ্বিপাক্ষিক বৈঠক সারতে হল ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে। মোদী আরও জানান, এটাই সেরা সময় দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ককে আরও মজবুত করার। গত বছরে ওসাকায় জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে মরিসন মোদীর সঙ্গে একটি সেলফি তুলেছিলেন। পরে সেটা টুইট করে মরিসন বলেন, “খুব ভাল মানুষ মোদী।” গত ৬ এপ্রিল তাঁদের দু’জনের মধ্যে কোভিড পরিস্থিতি নিয়েও কথা হয়।