দেশে আটকে পড়া অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ও স্থায়ী অভিবাসীদের ফিরতি ফ্লাইট ১৬ এপ্রিল

করোনা ভাইরাস সংকটে দেশে গিয়ে আটকে পড়া অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ও স্থায়ী অভিবাসীদের ফেরত আনার জন্য ঢাকাস্থ অস্ট্রেলিয়ান হাইকমিশন নন কমার্শিয়াল ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে। আগামী ১৬ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) শ্রীলংকান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তাদের ঢাকা থেকে মেলবোর্নে নিয়ে আসা হবে। ফ্লাইটি ঐদিন রাত সোয়া ৮ টায় ঢাকা থেকে ছাড়বে এবং পরদিন ১৭ এপ্রিল শুক্রবার দুপুর ২ টা ২০ মিনিটে মেলবোর্নে পৌছাবে। এরপর সকল পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে সকল যাত্রীদেরকে বিভিন্ন হোটেলে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

টিকিটের দাম ইকোনমি ক্লাস  ১,০৩,২৯০ টাকা ও বিজনেস ক্লাস ১৬৫০৯৩ টাকা । বুকিং করতে ৯ এপ্রিল সকাল ১১টার মধ্যে  ইমেইলে dacres@srilankan.com যোগাযোগ করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত দেশে আটকা পড়া বাংলাদেশী অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ও স্থায়ী অভিবাসীরা বিভিন্ন মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়ায় ফেরার আগ্রহ জানাচ্ছিল। অন্যদিকে পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে ঢাকাস্থ অস্ট্রেলিয়ান  হাইকমিশনে কার্যক্রম সীমিত করা হয়েছিল। ফলে আটকে পড়া ভ্রমণকারীরা মহা অনিশ্চয়তায় দিনপাত করছিলেন। এই অবস্থায় মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্বেলটাউন ইনকের কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি এনাম হক, সিনিয়র সহ সভাপতি  জাহাঙ্গীর আলম, জেনারেল সেক্রেটারী  মো: সফিকুল আলম  স্ব-উদ্যোগে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন, নাগরিকত্ব, অভিবাসী সেবা ও বহুসংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় যোগাযোগ শুরু করেন। এই সময় মন্ত্রনালয় থেকে তাদের কাছে আগ্রহীদের তালিকা চাওয়া হয়।

তালিকা করতে গত ১ এপ্রিল অনলাইন পত্রিকা বাংলাকথায় ” বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়ান বাংলাদেশীদের ফেরত আনার উদ্যোগ, সহযোগিতা দেবে মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্বেলটাউন ইনক” এই সংক্রান্ত নিউজ  প্রকাশিত হয়। এরপর কয়েক শতাধিক ইমেইলে ৭০৪ অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ও স্থায়ী অভিবাসীদের অস্ট্রেলিয়া ফেরত আসার আগ্রহ প্রকাশ করে। মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্বেলটাউন ইনকের স্বেচ্ছাসেবকরা প্রতিটি ইমেইল প্রেরনকারীকে ফিরতি ইমেইেলে তাদের সহযোগিতার সর্বোচ্চ আশ্বাস দেয় এবং প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে একটি তালিকা প্রস্তুত করে। এই তালিকা নিয়ে মাল্টিকালচারাল সোসাইটি অব ক্যাম্বেলটাউনে ইনকের সিনিয়র সহ সভাপতি  জাহাঙ্গীর আলম সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর সাথে দেখা করেন এবং আটকে পড়া অস্ট্রেলিয়ান সিটিজেন ও পাঃ রেসিডেন্টেদের অস্ট্রেলিয়া ফেরত আনার প্রক্রিয়া শুরুর অনুরোধ জানান। অস্ট্রেলিয়ার মন্ত্রী ব্যাপারটি নিয়ে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ করেন। সেই ধারাবাহিকতায় আজ ৭ এপ্রিল (মঙ্গলবার)  ফিরতি ফ্লাইটের তারিখ ঘোষনা করা হয়। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)