বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্ক’র ডেঙ্গু বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

ড. রতন কুন্ডু: আজ ১৯ অক্টোবর (শনিবার) বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্ক (BEN) অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে সিডনির টুঙ্গাবি অ্যাঙ্গলিকান চার্চ হলে বাংলাদেশে ডেঙ্গু মহামারী, কারণ সমূহ, প্রতিকার ও প্রতিরোধ বিষয়ে একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরুর পর স্বাগত বক্তব্য রাখেন ড. মমতা চৌধুরী। মূল আয়োজক ড. স্বপন পালের উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব শুরু হয়। সভাপতিত্ব করেন ওয়েস্টার্ন সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মমতা চৌধুরী। রেপোর্টিয়ারের দায়িত্ব পালন করেন ডাঃ সুরভী পাল ও পরিবেশ বিজ্ঞানী নাজিজা ফাতেমী। ডেঙ্গু থেকে বেঁচে আসার স্মৃতিচারণ করেন নতুন প্রজন্মের ইহসান তারিক। বাংলাদেশে ডেঙ্গুর বর্তমান তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন সিডনিতে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল খন্দকার মাসুদ আলম।

পরমাণু গবেষণাকেন্দ্রের উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. দেবাশীষ মজুমদারের সভাপতিত্বে দ্বিতীয় পর্বে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ ড. ক্যামেরন ওয়েব, মেলবোর্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ পরামর্শক ড. কৃষ্ণা হোর্ট ও নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়ের পি এইচ ডি স্কলার ড. কিশোর পাল। তৃতীয় পর্বে ডাঃ মোঃ সাফির সভাপতিত্বে গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন মিঃ ক্যামেরন ওয়েব ও ড. স্বপন পাল।

চতুর্থ পর্বে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিজ্ঞানী ও সার্ভিলেন্স কোঅর্ডিনেটর ড. রতন কুন্ডু। আলোচনায় সব একাডেমিক, বিজ্ঞানী ও পরিবেশবিদরা অংশগ্রহণ করেন। তারপর ড. কুন্ডু বাংলাদেশ হাই কমিশন, সরকার ও অন্যান্য নির্বাহী ও গণসচেতনমূলক বিভাগে প্রেরিতব্য সুপারিশ সমূহ পাঠ করেন। সবশেষে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে ড. স্বপন পাল সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। উল্লেখ্য বিগত দুই দশক যাবৎ বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্ক (BEN) অস্ট্রেলিয়া নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

বিশ্বের দীর্ঘতম বিরতিহীন ফ্লাইট চালু করলো অস্ট্রেলিয়ার কোয়াণ্টাস এয়ারলাইনস

শতদল তালুকদারঃ অস্ট্রেলিয়ার কোয়াণ্টাস এয়ারলাইনস চালু করলো বিশ্বের দীর্ঘতম বিরতিহীন ফ্লাইট। নিউইয়র্ক থেকে সিডনি পর্যন্ত এই প্রথম কোনো এয়ারলাইনস এত দীর্ঘ পথ কোথাও না থেমে সরাসরি ফ্লাইট চালু করতে যাচ্ছে। এর মধ্যদিয়ে একটি বিমান ও এর যাত্রীদের দীর্ঘ যাত্রার মানসিক ও শারীরিক সীমার পরীক্ষা হতে যাচ্ছে।

৪০ যাত্রী নিয়ে কোয়াণ্টাসের বোয়িং ৭৮৭-৯ ফ্লাইটটি শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকালে নিউইয়র্ক থেকে যাত্রা শুরু করেছে। এসব যাত্রীর অধিকাংশ কোয়াণ্টাসের কর্মচারি। এ দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে আগামীকাল রবিবার সকালে বিমানটির অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে অবতরণের কথা রয়েছে।

এ বছর অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় পতাকাবাহী এই এয়ারলাইনের পরিকল্পিত তিনটি ‘দীর্ঘ বিমান যাত্রার’ প্রথমটিতে গবেষকরা ১৯ ঘণ্টার বিরতিহীন যাত্রায় যাত্রীদের ওপর এর প্রভাব পর্যবেক্ষণ করবেন।